Apps

জুম অ্যাপ কি? জুম অ্যাপ ব্যবহার করার নিয়ম ।

আসসালামুআলাইকুম প্রিয় ভিউয়ার্স। আজকে আমরা আপনাদের সামনে প্রয়োজনীয় একটি অ্যাপস সম্পর্কে আলোচনা করব। এই অ্যাপসটির প্রয়োজনীয়তা অনেক। তারপরে এছাড়া বর্তমান সময়ে এটির ব্যবহার দিন দিন বেড়ে চলেছে। আমরা কথা বলব জুম অ্যাপ সম্পর্কে। অর্থাৎ আপনি যদি জুম অ্যাপ সম্পর্কে জানার জন্য অনলাইনে অনুসন্ধান করে আমাদের ওয়েবসাইটে এসে থাকে তাহলে সঠিক জায়গায় এসেছেন। এখানে আমরা এই অ্যাপস সম্পর্কে বিস্তারিত সকল তথ্য তুলে ধরবো। এখান থেকে আপনি জানতে পারবেন এই অ্যাপসটি কি কিভাবে ব্যবহার করবেন। এবং জুম অ্যাপ ব্যবহারের নিয়ম।

প্রথমে আপনাদের সামনে আলোচনা করব এটি ব্যবহার সম্পর্কে। অফিশিয়াল মিটিং এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ক্লাস সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের এটির ব্যবহার হয়েছে । বর্তমান অনলাইন ক্লাস এর ক্ষেত্রে এই অ্যাপসটির জনপ্রিয়তা অনেক। সুন্দরভাবে অনলাইনে মিটিং এবং ক্লাসের জন্য এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অ্যাপস। তাই আমাদের সকলেরই উচিত এই অ্যাপস সম্পর্কে জানা।

প্রথমে আপনাদের জানিয়ে রাখি এই অ্যাপসটি আপনি কোথায় পাবেন। এই অ্যাপসটি ব্যবহারের জন্য আপনি প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন। এই অ্যাপসটি প্লেস্টরে এভেলেবেল রয়েছে। আপনি খুব সহজেই আপনার স্মার্ট ফোন থেকে এই অ্যাপস টি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। এবং যারা ল্যাপটপ এবং কম্পিউটারে ব্যাবহার করবেন। তারা আপনার ক্রোম ব্রাউজার থেকে জুম অ্যাপ টাইপ করে অনলাইন অ্যাপ্লিকেশন টি নিতে পারেন। চাইলে গুগল প্লে থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

জুম অ্যাপ কি

জুম অ্যাপ হল একটি ক্লাউড-ভিত্তিক ভিডিও কনফারেন্সিং টুল যা আপনাকে ভার্চুয়াল একের পর এক বা টিম মিটিং সহজে হোস্ট করতে দেয়। শক্তিশালী অডিও, ভিডিও এবং সহযোগিতা বৈশিষ্ট্য সহ, এই দূরবর্তী যোগাযোগ  দূরবর্তী দলের সদস্যদের একে অপরের সাথে সংযুক্ত করে।

জুমের মূল বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে রয়েছে:

  • এইচডি ভিডিও চ্যাট এবং কনফারেন্সিং
  • ভয়েস ওভার ইন্টারনেট প্রোটোকল
  • তাৎক্ষনিক বার্তাপ্রদান
  • ভিডিও কলের জন্য ভার্চুয়াল ব্যাকগ্রাউন্ড
  • স্ক্রিন শেয়ারিং এবং সহযোগী হোয়াইটবোর্ড
  • ভিডিও ওয়েবিনার হোস্টিং

বুঝতেই পারলেন এই অ্যাপসটি কি ,কিভাবে কাজ করে। সেইসাথে সংক্ষিপ্তভাবে এর সুবিধা গুলো তুলে ধরা হয়েছে। এখান থেকে আপনি করে থাকা অবস্থায় সেট এবং অডিও ভিডিও মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারবেন। মনে করেন আপনি কোন ক্লাস অথবা মিটিংয়ে রয়েছেন। আপনার শিক্ষক অথবা অফিসের বস কোন একটি বিষয়ে আপনাদের ধারণা দিচ্ছে।

সে বিষয়ে আপনার কোন মতামত থাকলে আপনি সেটি মুখে বলে প্রকাশ করতে পারবেন। অথবা আপনি মাইক্রোফোন অন না করে। লাইভ চ্যাটের মাধ্যমে জানিয়ে দিতে পারবেন। কারণ এই অ্যাপটির তৎকালীন বাধা প্রদানের সুবিধা রয়েছে। আপনি যদি চান এই অ্যাপসটির মাধ্যমে স্ক্রিন শেয়ার করতে পারবেন। এছাড়াও এই অ্যাপস এর মধ্যে আপনি ভিডিও কলের জন্য ভার্চুয়াল ব্যাকসাইড পাচ্ছেন ।

জুম অ্যাপ ব্যবহার করার নিয়ম

আপনি কি জুম অ্যাপ এ নতুন। অর্থাৎ নতুন ব্যবহারকারী। তাহলে এখান থেকে জেনে নিতে পারবেন জুম অ্যাপ ব্যবহারের নিয়ম গুলো। এর জন্য আপনাকে যেটা করতে হবে ।প্লে স্টোর থেকে জুম অ্যাপ টি ডাউনলোড করে নিতে হবে। এরপর আপনার নাম এবং জিমেইল দিয়ে সাইন আপ করে নিতে হবে। এর বাইরে কিছু তথ্য প্রদান করতে হতে পারে যেমন দেশ। এরপর আপনার প্রোফাইলে যাবতীয় ইনফরমেশন যেমন আপনি চাইলে প্রোফাইল পিকচার সহ সংক্ষেপে বায়ো ডাটা দিতে পারেন।

এই হলো আপনাদের অ্যাপ সাইন আপ করার কাজ। এখন আপনি যদি আপনার অনলাইন ক্লাস অথবা মিটিং এ জয়েন করতে চান এক্ষেত্রে আপনাকে যেটি করতে হবে । জুম আইডি এবং পাসওয়ার্ড নিতে হবে। এটি আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা অফিস থেকে দেওয়া হবে সেই আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে সেই মিটিং-এ অথবা ক্লাসে জয়েন করতে হবে। এটি সিকিউরিটি হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে। এটি করা না হলে দেখা যেত এই অ্যাপ ব্যবহার কারীগণ যখন তখন যেকোনো ক্লাস মিটিংয়ে যোগ হতে পারত।

Related Articles

Back to top button