Uncategorized

ডায়াবেটিস কমানোর উপায় বা টিপস

আসসালামু আলাইকুম বন্ধুরা আশা করি ভাল আছেন আজকে আমরা হেলথ বিষয়ক আরো একটি আলোচনা নিয়ে উপস্থিত হয়েছি। সুতরাং হেলথ অর্থাৎ স্বাস্থ্য বিষয়ক আরো নতুন এই আলোচনায় আপনাকে স্বাগতম জানাচ্ছি আজকের আলোচনায় আমরা যে বিষয় সম্পর্কে তথ্য প্রদান করব সে বিষয় সম্পর্কে আমাদের সকলের জানার প্রয়োজন রয়েছে পাঠক বন্ধুগণ আপনারা হয়তো আলোচনার সাপেক্ষে এতক্ষণে জানতে সক্ষম হয়েছেন আমরা আজকে ডায়াবেটিস সম্পর্কে কথা বলব ডায়াবেটিস বর্তমান সময়ের একটি জাতীয় রোগ হিসেবে স্বীকৃতি পাচ্ছে এর কারণ বর্তমান সময়ের সকল স্তরের মানুষের ডায়াবেটিস লক্ষ্য করা যাচ্ছে আর এটি বিশাল আকার ধারণ করছে বর্তমান সময়ে অনেকেই এই সমস্যার সম্মুখীন হয়েছে।

আবার পরিবারগতভাবে অনেকেই ভয়ে রয়েছে এই রোগের পাশাপাশি অনেকেই সচেতন থাকার জন্য এই বিষয় সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করার আগ্রহ প্রকাশ করছেন ।  জানতে চাচ্ছেন ডায়াবেটিস কি কিভাবে ডায়াবেটিস থেকে দূরে থাকা যায় এই বিষয়ে কিছু টিপস সম্পর্কে জানার জন্য অনেকেই অনলাইনে অনুসন্ধান করে যাচ্ছেন তবে বর্তমান সময়ে খুব কম সংখ্যক ওয়েবসাইট এই বিষয়ে টিপস মূলক তথ্য প্রদান করছে তাই আমরা আগ্রহের সাথে আমাদের আলোচনার মাধ্যমে নিয়ে এসেছি এই বিষয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ টিপ।

এই বিষয় সম্পর্কে অবশ্যই জানার প্রয়োজন রয়েছে যেহেতু এই রোগ অনেক ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে বর্তমান সময়ে প্রায় সকলের এই রোগের উপসর্গ লক্ষ্য করা যায় তাই আমরা প্রথমে জানবো ডায়াবেটিস কি কি জন্য হয়ে থাকে এবং ডায়বেটিস থাকে বেঁচে থাকার উপায় এবং ইতিমধ্যে তাদের ডায়াবেটিস হয়েছে তারা কিভাবে তারা ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে এই বিষয়ে সম্পর্কে কথা বলব আমরা। প্রিয় পাঠক বন্ধু এক্ষেত্রে আমরা বলতে পারি যাদের ডায়াবেটিস নেই তারাও আমাদের আলোচনায় থাকতে পারেন এক্ষেত্রে পরবর্তী সময়ে ডায়াবেটিস যেন না হয় এই বিষয়ে নিজেকে প্রস্তুত করার জন্য আলোচনার সাথে থাকতে পারেন পাশাপাশি যাদের ডায়াবেটিস রয়েছে তারা তাদের ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য কি কি কাজ করতে পারেন এই বিষয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ টিপস প্রদান করতে পারব আমরা।

4সুতরাং পাঠক বন্ধুগণ আপনাদের সকলের জন্যই আজকের আলোচনাটি ব্যাপক গুরুত্বপূর্ণ গুরুত্বপূর্ণ এই আলোচনার সাথে থাকুন আপনাদের প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করুন এবং স্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্ত কিছুর প্রতি লক্ষ্য রাখুন আশা করছি আপনি সুস্থ থাকতে পারবেন। স্বাস্থ্য বিষয়ক অন্যান্য অনেক আলোচনার পাশাপাশি এই আলোচনাটিও অনেক গুরুত্বপূর্ণ তাই সমস্ত বিষয় সম্পর্কে জেনে রাখুন আশা করছি পরবর্তী সময়ে এই বিষয়গুলো জানার ফলে আপনি উপকৃত হবেন।

ডায়াবেটিস হওয়ার কারণ কি ?

আপনি কি জানেন ডায়াবেটিস কেন হয় ? ইতিপূর্বে আমাদের এই সমস্যা ছিল না কিন্তু বর্তমান সমাজের মানুষের এই সমস্যা হচ্ছে এর কারণ কি কেন ডায়াবেটিস হয়ে থাকে এই বিষয়ে সম্পর্কে অবশ্যই জানার প্রয়োজন রয়েছে তাই আমরা আমাদের আলোচনায় এই বিষয়টি নিয়ে এসেছি পাঠক বন্ধুগণ কোন কিছুর প্রতিকার সম্পর্কে জানতে হলে অবশ্যই এজি হওয়ার কারণ সম্পর্কে জানতে হবে এর ফলে আমরা এর প্রতিকার সহজভাবে খুঁজে নিতে পারব স্বাভাবিকভাবে ডায়াবেটিস বংশগত ভাবে হতে পারে এছাড়া বেশ কিছু কারণ রয়েছে এই কারণগুলো নিচে তুলে ধরছি আমরা :

ডায়াবেটিস এর কমন কিছু লক্ষনসমূহ –

১। অতিরিক্ত ক্ষুধা লাগা

২। অতিরিক্ত পানির তৃষ্ণা লাগা

৩। ওজন কমে যাওয়া

৪। বার বার প্রস্রাব হওয়া

৫। চোখের দৃষ্টি ঝাপসা হতে পারে

৬। অতিরিক্ত দুর্বলতা অনুভব হতে পারে

ডায়াবেটিস কত প্রকার

 সাধারনত ডায়াবেটিস দুই ধরনের

 

 ডায়াবেটিস রোগীর সকালের খাবার

সকাল ৭ঃ৩০-৮ঃ ০০ টা

রুটি ১ টি
দুধ এক গ্লাস ফ্যাট ছাড়া
ডিম ১ টি
শাক-সবজি ১ কাপ

ডায়াবেটিস রোগীর দুপুরের খাবার

দুপুর ১ঃ৩০-২ঃ ০০ টা
ভাত এক থেকে দেড় কাপ
শাক-সবজি এক থেকে দেড় কাপ
ডাল ১ কাপ
মাছ -মাংস ৬০ গ্রাম ফ্যাট ছাড়া

ডায়াবেটিস রোগীর বিকেলের নাস্তা

বিকেল ৫ঃ৩০-৬ঃ০০  টা

যে কোন ফল ১ টি
যেকোনো বাদাম ১/৪ কাপ
চা ১ কাপ

ডায়াবেটিস রোগীর রাতের খাবার

রাত ৯ঃ০০-৯ঃ৩০  টা

ভাত/রুটি এক থেকে দেড় কাপ/ ১টি
শাক-সবজি এক কাপ
মাছ -মাংস ৬০ গ্রাম ফ্যাট ছাড়া
যে কোন ফল ১ টি

ডায়াবেটিস কমানোর টিপস

ডায়াবেটিস কমানোর টিপস গুলো যারা পেতে চান তারা আমাদের সাথে থেকে টিপসগুলো সংগ্রহ করতে পারেন। যাদের ডায়াবেটিস রয়েছে ডায়াবেটিসের মাত্রা সম্পর্কে জানার চেষ্টা করুন একজন সুচি কৃষকের পরামর্শ অর্জন করুন সেই সাথে টিপস বিষয়ক এই তথ্য গুলোর প্রতি খেয়াল রাখুন আশা করছি আপনার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকবেন । সুতরাং এই টিপস গুলো সম্পর্কে জানার প্রয়োজন রয়েছে আপনার নিচে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি টিপস তুলে ধরা হচ্ছে :

Related Articles

Back to top button