Uncategorized

জাতীয় পতাকা দিবস কবে? এবং কেন পালন করা হয়? সম্পূর্ণ ইতিহাস ।

ঐতিহাসিকজাতীয় পতাকাদিবস আজ। ১৯৭১ সালের এই দিনে পূর্ব পাকিস্তানের মাটিতে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পতাকা উত্তোলন করা হয়। আশাকরি ইতিমধ্যে বুঝে গেছেন আজকের আলোচনার বিষয় কি। আজকে আমরা জাতীয় পতাকা দিবস কবে, কিভাবে আসলো এটি কেন পালন করা হয়। এবং এটি সম্পূর্ণ ইতিহাস সম্পর্কে আপনাদের জানাবো। আপনি যদি এই সকল বিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য আমাদের ওয়েবসাইটটিতে এসে থাকেন তাহলে সঠিক জায়গায় এসেছেন। আশা করি আপনাদের বিস্তারিত তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করতে পারব। জাতীয় পতাকা দিবস সম্পর্কে বিস্তারিত জ্ঞান লাভের জন্য আপনাকে পুরো পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে। ফলে আপনি বুঝতে পারবেন এই বিষয়ে বিস্তারিত সকল তথ্য।

সুতরাং বাঙ্গালীদের জন্য এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট। প্রথমেই আপনাদের জানিয়ে রাখি জাতীয় পতাকা দিবস কবে।  ২৩ মার্চ বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা দিবস। একাত্তরের এই দিনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনে প্রথম জাতীয় পতাকা তোলা হয়েছিল। তাই এই দিনটিকে জাতীয় পতাকা দিবস হিসেবে ঘোষিত করা হয়। এবং তখন থেকে এই দিবসটি আগ্রহের সাথে আনন্দের সাথে উদযাপিত হয়ে থাকে।

জাতীয় পতাকা দিবস কেন পালন করা হয়

এখান থেকে আপনি জানতে পারবেন কেন জাতীয় পতাকা দিবস পালন করা হয়। এই বিষয়ে অনেকেই ভ্রান্ত ধারণা পোষণ করে থাকেন অনেকেই অনুসন্ধান করে থাকেন এই বিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য। তাই আমরা এখানে জানিয়ে দেবো কেন এই দিবসটি পালন করা হয়। একটি পতাকা শুধুমাত্র কাপড়ের টুকরো নয়। এই পতাকাটি পাওয়ার জন্য হাজার হাজার মানুষকে জীবন দিতে হয়েছে। দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধ এর ফলে অর্জন করতে হয়েছে স্বাধীনতা সেই সাথে এই পতাকা। অর্থাৎ পতাকা খুব সহজ একটি বিষয় নয়।  জাতীয় পতাকার মাধ্যমে একটি দেশের শান্তি সমৃদ্ধি এবং বিশ্বে পরিচিতি লাভ এর প্রতীক হয়ে ওঠে। তাই আমাদের সকলের উচিত জাতীয় পতাকা দিবস আগ্রহের সাথে আনন্দের সাথে উদযাপন করা। জাতীয় পতাকার প্রতি সম্মান প্রদর্শন করা আমাদের সকলের কর্তব্য। প্রিয় পতাকা দিবস এই দিনটিকে ছুটির দিন হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। অর্থাৎ এই দিনে স্কুলকলেজ থেকে শুরু করে অফিসআদালত বন্ধ থাকবে।

জাতীয় পতাকা দিবস ইতিহাস

জাতীয় পতাকা দিবস ইতিহাস সম্পর্কে জানার জন্য যারা অনলাইনে অনুসন্ধান করেছেন তারা এখান থেকে জেনে নিতে পারবেন এটির ইতিহাস সম্পর্কে। বাংলাদেশের সকল মানুষের এই ইতিহাস সম্পর্কে জানার প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করি। তাই যারা আমাদের ওয়েবসাইটে এসেছে তারা অবশ্যই এর ইতিহাস সম্পর্কে জানবেন।

বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা দিবসের ইতিহাস অনুযায়ী, ১৯৭১ সালে দেশের প্রথম স্বাধীন পতাকা উত্তোলন করা হয়। পতাকাটি গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস, সংগ্রাম এবং বাংলাদেশের জনগণ যে সমস্ত কিছুর জন্য লড়াই করেছিল তারও প্রতীক। ১৯৭০ সালের জুন রাতে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে সবুজ ব্যাকগ্রাউন্ডের কাপড়ে লাল বৃত্ত আনা হয়, যা এখন তিতুমীর হল নামে পরিচিত। কিন্তু ছাত্রনেতা শিবনারায়ণ দাসই সবচেয়ে শৈল্পিক পদ্ধতিতে পতাকার চূড়ান্ত রূপ দেন। তাই স্বাধীনতা লাভের পর ১৯৭১ সালের মার্চ প্রথম পতাকা উত্তোলন করা হয় যা ছিল বাংলাদেশের জনগণের জন্য বেশ আনন্দের উপলক্ষ।

চেষ্টা করেছি সঠিক তথ্য দিয়ে আপনাদের সহযোগিতা করার জন্য। আশা করি পোস্টটি ভাল লেগেছে। বাংলাদেশের ইতিহাস সম্পর্কে আমাদের ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ধরনের পোস্ট হয়েছে আপনার চাইলে সেগুলো পড়তে পারেন। অনেকেই রয়েছে যারা দেশ সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করতে চায় জানতে চায় দেশের ইতিহাস সম্পর্কে তাদের জন্য আমরা কিছু বিশেষ পোস্ট দেখেছি আপনারা চাইলে সেই সকল পোস্ট দেখতে পারেন। এতটা সময় আমাদের সাথে থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। এই পোষ্ট সম্পর্কে আপনার কোন মতামত থাকলে অবশ্যই নিচের কমেন্ট বক্স এর মাধ্যমে কমেন্ট করে জানিয়ে দেবেন।

Related Articles

Back to top button