Uncategorized

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উক্তি

সুপ্রিয় পাঠক ভাই বোন বন্ধুগণ আজকে আমরা আপনাদের মাঝে এমন একজন মহান ব্যক্তির উক্তি আপনাদের মাঝে উপস্থাপন করবো যিনি আমাদের আজকের বর্তমান বাংলাদেশের প্রধান কর্ণধার বাঙালি জাতির সূর্যসন্তান এবং সাধারণ মানুষের মহান নেতা। তিনি আর কেউ নন তিনি হচ্ছেন স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

আজকে আমরা আপনাদের মাঝে তারই মুখের বেশ কিছু বানী ও উক্তি উপস্থাপন করব। আপনারা আমাদের আজকের এই পোস্ট থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাণী গুলো সংগ্রহ করে আপনাদের বাস্তব জীবনে সকল ক্ষেত্রে অনুপ্রেরণা হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। কেননা তিনি ছিলেন বাঙালি জাতির আদর্শ সন্তান। তিনি তার জীবনের পুরোটা সময় বাঙালি জাতি ও বাংলাদেশের জন্য ব্যয় করে গেছেন।

তিনি তার জীবদ্দশায় বাঙালি জাতির উদ্দেশ্যে বেশ কিছু উক্তি ও বাণী বলে গেছেন। তার এই বাণী ও উক্তিগুলো প্রতিটি মানুষের জীবনে অনুপ্রেরণা তৈরি করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। আমরা আজকে আপনাদের মাঝে তার ওই উক্তিগুলো উপস্থাপন করব। আশা করি আমাদের আজকের এই পোস্টটি আপনাদের সকলের জীবনে অনেক কাজে লাগবে।

বাংলাদেশের ইতিহাসে যিনি মহান নায়কের ভূমিকায় অবতীর্ণ তিনি হচ্ছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তিনি বাঙালি জাতির প্রধান পথিকৃৎ। স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বাংলা ও বাঙালি প্রাণ এবং বাঙালি জাতির গঠনের প্রধান কারিগর। তার জন্ম না হলে হয়তো আজকের এই স্বাধীন বাংলাদেশের জন্ম হতো না।

কেননা তিনি তার জীবনের পুরোটা সময় বাংলা ও বাঙালি জাতির জন্য ব্যয় করে গেছেন। তিনি বাংলার মানুষের অধিকারের জন্য আজীবন লড়াই করেছেন। তারে ই অবদানে আমরা আজকে বাংলাকে মাতৃভাষার রূপে স্থান দিতে পেরেছি। তিনি সোনার বাংলা তৈরি করতে প্রধান ভূমিকা পালন করেছেন। বাংলা মহান মানুষটি ১৯২০ সালে গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ছোটবেলায় তিনি খোকা নামে পরিচিত ছিলেন।

তার আসল নাম হচ্ছে শেখ মুজিবুর রহমান। তিনি বাবা মায়ের প্রথম সন্তান। তার বাবার নাম শেখ লুৎফা রহমান এবং মাতার নাম সায়রা খাতুন। তিনি বাঙালি জাতি ও বাংলার জন্য গুরুত্বপূর্ণ অবদান পালন করার কারণে বঙ্গবন্ধু উপাধি লাভ করেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন একজন উন্নত ব্যক্তিত্বের অধিকারী। তিনি ছিলেন বাংলার সর্বসাধারণ মানুষের বন্ধু ও নেতা। তিনি ছোটবেলা থেকেই বাংলার মানুষের জন্য সকল ধরনের সাহায্য সহযোগিতার ব্যবস্থা করতেন।

তিনি বাঙালি জাতির মুক্তি ও স্বাধীন বাংলাদেশের জন্য পাকিস্তান বাহিনীর অসংখ্য জুলুম ও নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। তবুও তিনি বাংলার মানুষকে তার অধিকারও স্বাধীন মাতৃভূমি ফিরিয়ে দিয়েছেন। তার এই অবদান বাঙালি জাতি চিরকাল শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করবে। তিনি চিরকাল বাঙালি জাতির হৃদয়ে চিরস্মরণীয় ও বরণীয় হয়ে থাকবেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উক্তি

অনেকেই বাংলাদেশের বিভিন্ন জাতীয় দিবস গুলোতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উক্তি গুলো উপস্থাপন করার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উক্তিগুলো খুঁজে বেড়ায়। আজকে আমরা তাদের জন্যই নিয়ে এসেছি আমাদের পোস্টে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বেশ কিছু উক্তি।

আমাদের আজকের এই উক্তিগুলো সংগ্রহ করে আপনি আপনার নিজের জীবনে অনুপ্রেরণা মূলক উক্তি হিসেবে গ্রহণ করতে পারবেন এবং আপনার বন্ধু-বান্ধব ও ছোটদের মাঝে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উক্তিগুলো শেয়ার করে দিতে পারবেন। আপনার শেয়ারের ফলে প্রতিটি মানুষ তার জীবনে বঙ্গবন্ধুর জাতি গঠনের আদর্শ গুলো অর্জন করতে পারবে।

আমাদের আজকের এই পোস্ট থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উক্তিগুলো সংগ্রহ করে আপনি সোশ্যাল মিডিয়াতে বঙ্গবন্ধুর জন্ম দিবস উপলক্ষে উক্তিগুলো শেয়ার করতে পারবেন। তো পাঠক বন্ধুগণ চলুন দেখে নিই আমাদের আজকের এই পোস্টটি। নিচে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উক্তি গুলো তুলে ধরা হলো:

“যে মানুষ মৃত্যুর জন্য প্রস্তত, কেউ তাকে মারতে পারে না।”

 

“প্রধানমন্ত্রী হবার কোন ইচ্ছা আমার নেই। প্রধানমন্ত্রী আসে এবং যায়। কিন্তু, যে ভালোবাসা ও সম্মান দেশবাসী আমাকে দিয়েছেন, তা আমি সারাজীবন মনে রাখবো।”

 

“জীবন অত্যন্ত ক্ষণস্থায়ী। এই কথা মনে রাখতে হবে। আমি বা আপনারা সবাই মৃত্যুর পর সামান্য কয়েক গজ কাপড় ছাড়া সাথে আর কিছুই নিয়ে যাব না।”

 

“তবে কেন আপনারা মানুষকে শোষণ করবেন, মানুষের উপর অত্যাচার করবেন?”

 

“বিশ্ব দুই শিবিরে বিভক্ত – শোষক আর শোষিত। আমি শোষিতের পক্ষে।”

 

“সমস্ত সরকারী কর্মচারীকেই আমি অনুরোধ করি, যাদের অর্থে আমাদের সংসার চলে তাদের সেবা করুন।”

Related Articles

Back to top button