Uncategorized

আল আরাফা ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি ২০২২ বিজ্ঞপ্তি | আবেদন |যোগ্যতা | ফলাফল

আল আরাফা ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য নিয়ে আজকের আলোচনা। শিক্ষা বৃত্তি কি ? এটি কোন উদ্দেশ্যে ব্যাংকগুলো শিক্ষার্থীদের মাঝে বিতরণ করে থাকেন এই বিষয়গুলি সম্পর্কে আমরা সকলেই জানি। এক্ষেত্রে বিষয়ভিত্তিক আলোচনায় আমরা আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহে উপস্থিত হয়েছি আপনাদের মাঝে। প্রতিবছর বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীদের মাঝে এই আল আরাফা ইসলামী ব্যাংক বৃত্তি প্রদান করে থাকেন। যেগুলো একটি নিয়মের উপর বজায় রেখে শিক্ষার্থী নির্ধারণ করা হয়ে থাকে।

নির্ধারিত বিষয় সহ বিস্তারিত সকল তথ্য জানতে পুরো পোস্টের সাথে থাকুন আশা করি আপনি এই বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা থেকে জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন। আপনার উদ্দেশ্য সঠিক থাকলে আপনি এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে উপকৃত হবেন বলে মনে করছি। আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক শরিয়াহ ব্যবস্থা দ্বারা পরিচালিত হয়। শরিয়াহ-ভিত্তিক ব্যাংকিং অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখতে তারা আর্থিকভাবে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান করে। তারা বহু বছর ধরে এই কাজ করে আসছে।

আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক স্কলারশিপ সার্কুলার  ইতিমধ্যেই প্রকাশ করা হয়েছে।। তাদের সার্কুলার অনুসারে, তারা সাম্প্রতিক বছরে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান করে। এটা বাধ্যতামূলক নয় কিন্তু পাবলিক ইউনিভার্সিটিতে চান্স পাওয়া শিক্ষার্থীরা AIBL স্কলারশিপ পাওয়ার জন্য বেশি। কিন্তু গ্রামীণ এলাকা থেকে আসা ছাত্রদেরও এই বৃত্তির জন্য আবেদন করতে উৎসাহিত করা হয়। প্রতি বছর তারা গ্রামীণ এলাকার শিক্ষার্থীদের 70% বৃত্তি প্রদান করে।

আল আরাফা ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি

এই ব্যাংকটি শিক্ষার্থী নির্বাচনের ক্ষেত্রে একটি নির্ধারিত নিয়ম রেখেছেন যে নিয়ম সম্পর্কে জানা একান্ত জরুরি বলে মনে করছে। এর কারণ তাদের বৃত্তির জন্য আবেদন করলে যোগ্যতার প্রয়োজন রয়েছে এই জিনিসগুলো না জানলে আমরা আবেদন করতে ব্যর্থ হব। সুতরাং যারা এ বিধি নিষেধ গুলো এখন পর্যন্ত জানেন না তারা এখান থেকে এই বিষয়গুলো জেনে নেবেন। এই বৃত্তি আবেদনের জন্য যে যোগ্যতা গুলো একজন শিক্ষার্থীদের প্রয়োজন সেগুলো তুলে ধরা হবে এখানে আশা করি বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন। আবেদন আগ্রহের যে যোগ্যতাগুলো থাকা দরকার তা নিচে তুলে ধরা হয়েছে।

  • আবেদনকারীদের 2020 সালে এইচএসসি পাস করতে হবে
  • প্রয়োজনীয় জিপিএ :
  • সিটি কর্পোরেশন এলাকায় বিজ্ঞান গ্রুপের আবেদনকারীদের জিপিএ 5.00 এবং অন্যান্য (বিজনেস স্টাডিজ, মানবিক) আবেদনকারীদের প্রয়োজন জিপিএ 4.80।
  • সিটি কর্পোরেশন এলাকার বাইরে, বিজ্ঞান গ্রুপের শিক্ষার্থীদের প্রয়োজন জিপিএ 4.80 এবং অন্যদের প্রয়োজন 4.50।
  • যারা আবেদনকারী পিতামাতার বার্ষিক আয় 2,40,000/- এর বেশি (দুজনের অভাব চল্লিশ হাজার) 20,000 প্রতি মাসে তারা এর জন্য যোগ্য নয়।
  • এছাড়াও, যেসব আবেদনকারী ইতিমধ্যেই সরকার ব্যতীত অন্যান্য উত্স থেকে বৃত্তি পাচ্ছেন তারা যোগ্য নন।
  • গ্রামীণ এবং অনগ্রসর এলাকা থেকে পাস করা প্রার্থীরা 70% বৃত্তি পান।

এই সকল বিষয় ঠিক রেখে যারা আবেদন করতে সক্ষম হবে তাদের আবেদন সঠিকভাবে সম্পন্ন করার পর আল আরাফা ইসলামী ব্যাংক একটি তালিকা প্রকাশ করবেন সেই তালিকা উপর ভিত্তি করে সকল তথ্য সঠিক ভাবে দিয়ে আপনি শিক্ষাবৃত্তির জন্য উপযুক্ত হতে পারেন। আপনার জমা দেওয়া তথ্য সঠিক না ভুল তা জানতে তারা আপনার এলাকায় যেতে পারে। ফর্ম ফিল-আপের সময় সব সঠিক তথ্য দিলে ভালো হবে। যখন তাদের যাচাইকরণ শেষ হবে তখন তারা আল-আরাফা ব্যাংকের চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করবে। ফলে সঠিক তথ্য দিলে ভালো হবে।

Related Articles

Back to top button